দরজায় কড়া নাড়ছে ভারত-ইংল্যান্ডের মধ্যকার চার ম্যাচের টেস্ট সিরিজ। চেন্নাইয়ে আগামী ৫ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হবে ভারত-ইংল্যান্ডের টেস্ট লড়াই।

blank
blank
blank
blank
blank
blank
blank

সিরিজের আগে ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি ও তাদের দলের বোলারদের নিয়ে চিন্তায় রয়েছেন ইংল্যান্ডের ব্যাটিং কোচ গ্রাহাম থর্প।

কোহলির ব্যাটিং নিমিষেই ম্যাচ ও সিরিজের গতিপথ ঠিক করে দিতে পারে। সেই সাথে ভারত এখন আর স্পিন নির্ভর দল নয়, পেসাররা দলকে ম্যাচ জেতাচ্ছে।

blank
blank
blank
blank
blank
blank
blank

সদ্য অস্ট্রেলিয়া জয় করে আসা ভারত দলকে সামলানো বড় চ্যালেঞ্জ হবে বলে মনে করেন থর্প। সর্বশেষ ২০১৬ সালে ভারত সফরে পাঁচ ম্যাচের সিরিজ ৪-০ ব্যবধানে হেরেছিল ইংলিশরা।

সিরিজে ৬৫৫ রান করেছিলেন কোহলি। এরপর ২০১৮ সালে ইংল্যান্ডের মাটিতে পাঁচ ম্যাচে টেস্ট সিরিজে ৫৯৩ রান করেন তিনি। তবে তার দল সিরিজটি ৪-১ ব্যবধানে হারে। তাই ইংল্যান্ডকে সামনে পেলেই জ্বলে উঠে কোহলির ব্যাট।

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে এখন পর্যন্ত ১৯ ম্যাচের ৩৫ ইনিংসে ৫টি করে সেঞ্চুরি ও হাফ-সেঞ্চুরিতে ৪৯.০৬ গড়ে ১৫৭০ রান করেন কোহলি।

blank
blank
blank
blank
blank
blank
blank

দেশের মাটিতে ৩টি সেঞ্চুরি ও ২টি হাফ-সেঞ্চুরিতে ৯ ম্যাচে ১৫ ইনিংসে ৮৪৩ রান করেছেন তিনি। গত বছরে করোনাভাইরাসের কারণে কোহলি মাত্র ৩টি টেস্ট খেলেছেন। রান করেছেন ১১৬।

তাই নতুন বছরে ভারত অধিনায়ক নিঃসন্দেহে রানের ক্ষুধায় আছেন। আর সেই ক্ষুধা যদি ইংল্যান্ডের বিপক্ষে আসন্ন সিরিজে মিটিয়ে নেন, তবে প্রতিপক্ষের জন্য দুর্দশাই অপেক্ষা করছে।

blank
blank
blank
blank
blank
blank
blank

এবারের ভারত সফরে ৪টি টেস্ট, ৫টি টি-টুয়েন্টি এবং ৩টি ওয়ানডে ম্যাচের সিরিজ খেলবে ইংল্যান্ড। সিরিজ শুরুর আগে কোহলিকে চিন্তার ভাজ থর্পের কপালে।

তিনি বলেন, ‘কোহলি অসাধারণ এক ক্রিকেটার। বহু বছর ধরে সে নিজেকে প্রমাণ করে যাচ্ছে। ঘরের মাঠকে সে হাতের তালুর মতো চেনে। আমাদের লক্ষ্য তাকে দ্রুত ফেরানো।

কোহলি থাকলেই বড় স্কোর গড়ে ফেলবে ভারত। তাই কোহলিকে আটকাতে সব পরিকল্পনা করতে হবে আমাদের। তাকে আটকানো সহজ কাজ হবে না।’

blank
blank
blank
blank
blank
blank
blank

শুধুমাত্র কোহলিই নন, ভারতের বোলারদের নিয়েও চিন্তা থর্পের। ঘরের মাঠে ভারত আগে স্পিন নির্ভর দল ছিল। এখন তাদের পেসাররা বিশ্বমানের।

তাই কোহলির সাথে ভারতের বোলারদের সামলানো বড় চ্যালেঞ্জ। তিনি বলেন, ‘ভারতের বোলিং আক্রমণ এখন আর শুধু স্পিন নির্ভর নয়, পেসও তাদের বড় শক্তি।

আমার মনে হয়, স্পিনারদের চেয়ে তাদের পেসাররা আমাদের অনেক বেশি ভোগাবে। তাই কোহলির সাথে ভারতের স্পিন-পেসারদের নিয়ে আমাদের অনেক বেশি ভাবতে হবে। সব মিলিয়ে আমাদের জন্য অনেক বড় চ্যালেঞ্জই অপেক্ষা করছে।’

blank
blank
blank
blank
blank
blank
blank

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.