কথায় আছে কার ভাগ্যে কে পায়, ভাগ্যে যদি না থাকে কোন কিছুই হয় না। বাংলা চলচ্চিত্রের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তের (rituparna sengupta) ক্ষেত্রেও ঠিক ঘটেছিল তেমনটাই।

blank
blank
blank
blank
blank
blank
blank

ঋতুপর্ণা দুই দশক ধরে বাংলা চলচ্চিত্র দুনিয়ায় নিজের করিশমা দেখিয়ে যাচ্ছেন। বাংলা ইন্ডাস্ট্রির নয় পাশাপাশি বলিউড এবং বাংলাদেশের ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতেও বেশ নাম করেছেন এই নায়িকা।

তবে একটা সময় নিজের হাতে আসা এমন এক ছবি ঋতুপর্ণা করতে অস্বীকার করেছিলেন যা পরবর্তীকালে গিয়ে বাংলা চলচ্চিত্র দুনিয়ায় এক মাইলস্টোন হয়ে রয়ে গিয়েছে।

blank
blank
blank
blank
blank
blank
blank

স্বনামধন্য পরিচালক ঋতুপর্ণ ঘোষের পরিচালিত এক ছবিতে কাজ করতে চাননি ঋতুপর্ণা আর সেই ছবি লুফে নিয়েছিলেন বিশ্বসুন্দরী ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন (Aishwarya Rai Bachchan)।

ঋতুপর্ণ ঘোষ (Rituparno Ghosh) পরিচালিত চোখেরবালি (Chokher bali) সিনেমাটিতে বিনোদিনীর চরিত্রে অভিনয় করার জন্য সর্বপ্রথম কাস্ট করা হয়েছিল অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তকে। তবে পরিচালকের সেই প্রপোজাল ফিরিয়ে দিয়েছিলেন ঋতুপর্ণা।

blank
blank
blank
blank
blank
blank
blank

আর তারপরেই বিনোদিনীর চরিত্রের জন্য বেছে নেওয়া হয় রাই সুন্দরীকে। কি কারনে ঋতুপর্ণা বিনোদিনীর মতন একটি বিখ্যাত চরিত্র ছেড়ে দিলেন তা অবশ্য আজও জানা যায়নি।

মনে করা হয় সেই সময় ছবির অভিনেতা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় (Prosenjit Chatterjee) এর সাথে অভিনেত্রীর মনোমালিন্য চলছিল আর সেই কারণেই ঋতুপর্ণ ঘোষের প্রপোজাল ফিরিয়েছিলেন নায়িকা।

অবশ্য সেই ঘটনার ১৪ বছর পর ঋতুপর্ণা এবং প্রসেনজিৎকে একসাথে জুটি বাঁধতে দেখা গিয়েছিল প্রাক্তন সিনেমাতে। তবে ‘ চোখেরবালি’ সিনেমায় ঋতুপর্ণার ফিরিয়ে দেওয়া বিনোদিনী চরিত্রে অভিনয় করে বাংলা সিনেমা জগতে সাড়া ফেলেছিলেন অভিনেত্রী ঐশ্বর্য রাই বচ্চন।

blank
blank
blank
blank
blank
blank
blank

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.