ভারতের প্রত্যেকদিনই আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। করোনা আক্রান্তের সংখ্যায় আমেরিকা, ব্রাজিলকেও ছাপিয়ে গিয়েছে ভারত। এবার মিলল কিছুটা স্বস্তির খবর। সুস্থ হয়ে ওঠার পরিসংখ্যানে আমেরিকাকে পার করল ভারত। শনিবার কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের তরফ থেকে এই খবর জানানো হয়েছে।

এদিন ট্যুইট করে স্বাস্থ্য মন্ত্রকের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, সুস্থতার সংখ্যায় বিশ্বে এই মুহূর্তে এক নম্বর স্থানে রয়েছে ভারত, ছাপিয়ে গিয়েছে আমেরিকাকেও। ভারতে করোনা থেকে সুস্থ হয়ে ওঠার সংখ্যা মোট ৪২ লক্ষ বলে জানা গিয়েছে।

কেন্দ্রের তরফে জানানো হয়েছে, দ্রুত এই ভাইরাসকে চিহ্নিত করার জন্য সরকারের তরফে যে পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে, তার ফলেই এই সংখ্যা সামনে আসছে। অন্য একটি ট্যুইটে কেন্দ্রের তরফে উল্লেখ করা হয়েছে, দ্রুত টেস্টিং এবং ট্র্যাকোং-এর ফলেই এই ফল পাওয়া সম্ভব হয়েছে।

এদিকে শনিবারের হিসেব বলছে, গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ৯৩ হাজার ৩৩৭ জন নতুন করে নোভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত হয়ে ১২৪৭ জনের মৃ’ত্যু হয়েছে।

গোটা দেশে শনিবার সকাল পর্যন্ত স্বাস্থ্যমন্ত্রকের দেওয়া পরিসংখ্যান অনুযায়ী করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৮৩ লক্ষ ৮ হাজার ১৫ জন। এর মধ্যে করোনা অ্যাক্টিভ কেস ১০ লক্ষ ১৩ হাজার ৯৬৪টি। অর্থাৎ শনিবার সকাল পর্যন্ত ৪২ লক্ষ ৮ হাজার ৪৩২ জন করোনামুক্ত হয়েছেন। দেশে করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃ’তের সংখ্যা বেড়ে ৮৫ হাজার ৬১৯।

গোটা দেশের মধ্যে করোনার সংক্রমণ সবচেয়ে বেশি মহারাষ্ট্রে। শনিবার সকাল পর্যন্ত স্বাস্থ্যমন্ত্রকের দেওয়া পরিসংখ্যান অনুযায়ী মহারাষ্ট্রে নোভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ১১ লক্ষ ৪৫ হাজার ৮৪০। মা’রাঠাভূমে করোনায় মৃ’তের সংখ্যা বেড়ে ৩১ হাজার ৩৫১।

দক্ষিণের একাধিক রাজ্যে চোখ রাঙাচ্ছে করোনা। অন্ধ্রপ্রদেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৬ লক্ষের গণ্ডি ছাড়িয়েছে। সেরাজ্যে করোনা আক্রান্ত হয়ে ৫ হাজারেরও বেশি মানুষের মৃ’ত্যু হয়েছে। কর্নাটকেও লাগামছাড়া সংক্রমণ। দক্ষিণের এই রাজ্যে ৫ লক্ষের দোরগোড়ায় মোট সংক্রমণ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.