করো’না পরীক্ষার জন্য এক তরুণীর বিশেষ অ’ঙ্গ থেকে সংগ্রহ করা হয়েছে নমুনা। ঘ’টনাটি ঘ’টেছে ভা’রতের মহারাষ্ট্রে। বৃহস্পতিবার রাতে অ’ভিযু’ক্ত ল্যাব টেকনিশিয়ান অশো’করাওকে গ্রে’ফতার করেছে পু’লিশ।

গত মঙ্গলবারের ঘ’টনা। অম’রাবতীর এক শপিংমলে কাজ করেন ঐ তরুণী। তার এক সহক’র্মী করো’না ভাই’রাসে আ’ক্রান্ত হন। এরপর ওই শপিংমলের ২০ থেকে ২৫ ক’র্মচারী অম’রাবতীর কোভিড ট্রমা সেন্টার ল্যাবে গিয়ে নমুনা পরীক্ষা করান।

এদের মধ্যে ছিলেন ২৪ বছর বয়সী ঐ তরুণীও। ভুক্তভোগী তরুণীর অ’ভিযোগ, ঐ ল্যাবের টেকনিশিয়ান অশো’করাও প্রথমে তার নাক থেকে নমুনা সংগ্রহ করে বলেন তার করো’না পজিটিভ। পরবর্তী করো’না ভাই’রাস শনা’ক্ত ক’রতে তার যৌ’নাঙ্গ থেকে নমুনা নিতে হবে।

আর এতে পরীক্ষার ফলাফলও নির্ভুল পাওয়া যাবে। ঐ তরুণী তখন ল্যাব টেকনিশিয়ান অশো’করাওয়ের কাছে, জানতে চান এখানে কোনো নারী ল্যাব টেকনিশিয়ান আছেন কি-না। অশো’করাও তাকে জা’নান- এখানে কোনো নারী ল্যাব টেকনিশিয়ান নেই।

পরে ল্যাব টেকনিশিয়ান তাকে অন্য রুমে নিয়ে যান। সেখানে অশো’ক তার গো’পনাঙ্গ থেকে নমুনা সংগ্রহ করেন। পরে ল্যাব টেকনিশিয়ান তাকে জা’নান তার করো’না নেগেটিভ। বিষয়টি মনের ভেতর খট’কা লাগলে ঐ তরুণী তার ভাই ও অন্যদের মাধ্যমে খোঁজ নিয়ে জানতে পারেন,

নভেল করো’না ভাই’রাস শনা’ক্তের জন্য এমন কোনো পরীক্ষা নেই। এরপরই পু’লিশের দ্বারস্থ হন ঐ তরুণী।স্থা’নীয় বাদনেরা থা’নার উপপরিদর্শক গণমাধ্যমকে জা’নান,

ঐ তরুণীর সহক’র্মী দের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছিল। এরপর ওই নারীকে আ’লাদা করে ডেকে কো’ভিড-১৯ টেস্টের নামে তার গো’পনাঙ্গ থেকে নমুনা সংগ্রহ করেন এক ল্যাব টেকনিশিয়ান।

অ’ভিযোগের পরই চুক্তিভিত্তিক নিয়োগপ্রাপ্ত ল্যাব টেকনিশিয়ান অশো’করাওকে গ্রে’প্তার করা হয়েছে। এদিকে, এ ঘ’টনা নিয়ে তোলপাড় শুরু হয়েছে মহারাষ্ট্রে।

নড়েচড়ে বসেছেন মহিলা ও শি’শু ক’ল্যাণমন্ত্রী যশোমতী ঠাকুর। অ’ভিযু’ক্তের বিরুদ্ধ উপযু’ক্ত ব্যব’স্থা নেওয়ার আশ্বা’সও দিয়েছেন তিনি।

ভা’রতীয় সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়া, ইনন্ডিয়া টুডে ও ইন্ডিয়া ডট কম অবলম্বনে প্র’তিবেদনটি তৈরি করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.