আমি মনে করি না যে সে ২ কোটি ২০ লাখ রুপির জন্য পরিবার রেখে ১১ সপ্তাহ দূরে থাকবে- ক’দিন আগে স্টিভেন স্মিথকে নিয়ে এমন মন্তব্য করেছিলেন মাইকেল ক্লার্ক।

blank
blank
blank
blank
blank
blank
blank

তবে অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অধিনায়কের মন্তব্যকে ভুল প্রমাণ করে আইপিএলে খেলতে আসছেন স্মিথ। শুধু খেলবেনই না, সঙ্গে এবারের ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (আইপিএল) দিল্লি ক্যাপিটেলসের শিরোপা জয়ে অবদান রাখতে চান তিনি।

আইপিএলের গেল আসরে বাজে সময় পার করেছেন অস্ট্রেলিয়ার সাবেক এই অধিনায়ক। তাঁর নেতৃত্বে পয়েন্ট টেবিলের তলানিতে থেকে আসর শেষ করেছিল রাজস্থান রয়্যালস।

দলের পাশাপাশি স্মিথের পারফরম্যান্সও ছিল না প্রত্যাশা অনুযায়ী। ২৫.৯১ গড়ে রান করেছিলেন মাত্র ৩১১, ফিফটি ছিল মোটে তিনটি।

blank
blank
blank
blank
blank
blank
blank

ফলে এবারের আসরের নিলামের আগে তাকে ছেড়ে দেয় রাজস্থান। নিলামেও খুব বেশি ফ্র্যাঞ্চাইজি তাঁকে দলে নিতে আগ্রহ দেখায়নি।

শুরুতে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু বিড করেছিল। তবে দিল্লি ২ কোটি ২০ লাখ রুপি বিড করলে আর আগায়নি বেঙ্গালুরু।

ক্লার্কের মন্তব্যের পর এবারের আইপিএলে স্মিথের উপস্থিতি নিয়ে অনেকের মাঝে শঙ্কা তৈরি হগয়েছিল। তবে সেই অনিশ্চয়তা দূরে ঠেলে অজি তারকা জানিয়েছেন, দিল্লির দারুণ সব ক্রিকেটারদের সঙ্গে খেলতে ও কোচ রিকি পন্টিংয়ের সঙ্গে কাজ করতে তর সইছে না তাঁর!

blank
blank
blank
blank
blank
blank
blank

ফ্র্যাঞ্চাইজিটির সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে দেওয়া এক ভিডিও বার্তায় স্মিথ বলেন, ‘আমি সত্যিই এই বছর দলটির (দিল্লি ক্যাপিটেলস) সঙ্গে যোগ দিতে রোমাঞ্চিত।

আমার মনে হয়, দারুণ সব ক্রিকেটার রয়েছে দলে এবং আছেন অসাধারণ একজন কোচ। সেখানে যেতে এবং দারুণ কিছু স্মৃতি তৈরি করতে আমি মুখিয়ে আছি। আশা করি, গত বছরের চেয়ে আরও ধাপ এগিয়ে যেতে দলকে সাহায্য করতে পারব। তর সইছে না।’

১৪তম আসরকে সামনে রেখে বেশ শক্তিশালী দলই গড়েছে গতবারের রানার্স আপরা। দলের ব্যাটিং লাইন আপ যথেষ্ট শক্তিশালী।

শিখর ধাওয়ান, ঋষভ পান্ত, মার্কোস স্টয়নিস, শ্রেয়াস আইয়ার, শিমরণ হেটমায়ারদের মতো তারকা ক্রিকেটারদের নাম রয়েছে স্কোয়াডে। স্মিথ যোগ দেওয়ার দেওয়ায় এবারের আসরেও যে শিরোপার লক্ষ্য নিয়ে মাঠে নামবে তাতে কোন সন্দেহ নেই।

blank
blank
blank
blank
blank
blank
blank

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.